১ম বিশ্বযুদ্ধে ভারতীয় সেনাদের কাছে দেশের মিষ্টিই ছিল নস্টালজিক ফিলিং

স্টাফ রাইটার    2015-11-07

লন্ডন: প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়ে ফ্রান্স ও বেলজিয়াম ট্রেঞ্চের ভেতর ভারতীয় সেনাদের মধ্যে বাড়ির তৈরি মিষ্টি নিয়ে ঝগড়া বেধে যায়। ব্রিটিশ রাজপরিবারের কাছে এটি তখন আলোচনার বিষয় ছিল।বিদেশের মাটির জন্য লড়াই করতে আসা ভারতীয় সৈনিকের হতাশায় ভুগতো। দেশের মিষ্টিই তাদের কাছে নস্টালজিক ফিলিং ছিল। সেইজন্য একজন ময়রাকে ভারত থেকে ফ্রান্সে আনা হয় মিষ্টি তৈরির জন্য। সম্প্রতি প্রকাশিত একটি বইতে এই তথ্য পাওয়া গিয়েছে। বইটির নাম হল, 'ফর কিং অ্যান্ড অ্যানাদার কান্ট্রি: ইন্ডিয়ান সোলজারস অন দা ওয়েস্ট্রার্ন ফ্রন্ট ১৯১৪-১৮'।
ভারতীয় সৈনদের জন্য ফ্রান্সে মিষ্টি পাঠানো হত। কিন্তু তা এতো দূরে যেতে যেতে খারাপ হয়ে যেত। তাই ভারত থেকে মিষ্টি প্রস্তুত কারক মোদককে ফ্রান্সে পাঠানো হয়। এছাড়াও আরেকটি পদক্ষেপ নেওয়া হয় 'সেওই' ও 'ক্ষিরে'র সঙ্গে ভার্মেলিন ও দুধ মিশিয়ে সৈন্যদের জন্য মিষ্টি তৈরি করা হত, যা অনেকদিন ঠিক থাকত। বইটির লেখক শর্বানী বসু জানিয়েছেন, ভারতীয় সৈনিকদের কাছে মিষ্টি খাওয়ার বিষয়টি নিয়ে ইংল্যাল্ডে প্রশাসনিকস্তরে মিটিংয়ের পর মিটিং হয়।
১৫ লক্ষ ভারতীয় সেনা যারা ব্রিটিশ সেনাদের হয়ে প্রথম সারিতে গিয়ে লড়াই করেছিল তাদের কথা ভেবে এই বইটি লেখা হয়েছে। শর্বানী বসু জাতীয় আর্কাইভ ও ব্রিটিশ লাইব্রেরি থেকে আড়াই বছর ধরে সৈনিকদের ডাইরি, অফিসিয়াল রিপোর্ট, অফিসিয়াল চিঠি, পত্রিকার কাটিং, সৈনিকদের চিঠি, তাদের উত্তরপুরুষদের সাক্ষাৎকার নিয়ে বিষদে তথ্য সংগ্রহ করেন।
এবছর প্রথম বিশ্বযুদ্ধের শতবর্ষ। তাই মানুষের জানার প্রয়োজন, কেবলমাত্র ব্রিটিশ সৈনিকেরাই নয়, ইউরোপীয় যুদ্ধক্ষেত্রে যে শিখ, গারওয়ালিস, গোর্খা, পাঠান সৈনিকেরা কর্দমাক্ত ট্রেঞ্চের মধ্যে দিন কাটিয়েছিল তাদের কথাও। এই যুদ্ধ তৈরির ক্ষেত্রে এই ভারতীয় সৈনিকদের কোন অবদান ছিল না, তবুও ইংরেজ অফিসারদের সঙ্গে তারা কাধে কাধ মিলিয়ে লড়াই করেছে। ব্রিটিশ সৈনিকদের সঙ্গে একই যুদ্ধক্ষেত্রে মারাও গিয়েছে। এছাড়া শর্বানী বসু আরও কিছু বই লিখেছেন এই সৈনিকদের নিয়ে। সেগুলি হল, 'স্পাই প্রিন্সেস: দা লাইফ অফ নূর এনায়েত খান' এবং 'ভিক্টোরিয়া অ্যান্ড আবদুল: দা ট্রু স্টোরি অফ দা কুইন'স ক্লোউসেস্ট কনফিডেন্ট'।
শর্বানী বসু জানান, 'ভারতীয় সৈনিকদের কাহিনি নিয়ে আমার যথেষ্ট আগ্রহ রয়েছে। এই সৈনিকেরা বাড়ি থেকে হাজার হাজার মাইল দূরে যুদ্ধক্ষেত্রে লড়তে যেত। দুটো বিশ্ব যুদ্ধ তারা লড়েছে। এবার আমি চাইছি প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়ে সাধারণ সৈনিক-যেমন কৃষক, চাষা, অশিক্ষিত শ্রমিক-যারা কালাপানি অতিক্রম করে একশ বছর আগে ইউরোপে গিয়ে অন্য দেশের জন্য লড়াই করেছে তাদের কথা বলতে। এছাড়া মহারাজা, রাধুনী ও কাজের লোকও এর অন্তর্ভুক্ত। আমার কাছে এরা ব্যান্ড অফ ব্রাদ্রার্স যারা ওয়েস্টার্ন ব্যাটেল ফিল্ডে লড়তে যাচ্ছে। এই মানুষগুলোই ছিল আমার কাজের প্রেরণা।

সৈয়দ তনভীর নাসরীন,2016-05-09

এখনও সমুখে রয়েছে সুচির শর্বরী... জীবনে প্রতিদিন কতবার যে এই কবিতার লাইনগুলো আমার বেঁচে থাকা বাস্তবতার সঙ্গে মিলে যায়। এই কবিতার বিভিন্ন লাইন যে জীবনে কতবার মন্ত্রজ্ঞানে উচ্চারণ করেছি, কত দুঃখ, কত দ্বন্দ্বের মুহূর্তে। হে ঠাকুর, তোমার ভরসায় একমাত্র তোমার ....

স্টাফ রাইটার,2016-03-09

জয়পুর: লেখক অমিশ ত্রিপাঠি, যিনি শিব ট্রিলজির জন্য বিখ্যাত, একই সঙ্গে ৫ জন শিশুকে নিয়ে গল্প লিখেছেন। এই শিশুদের বয়স ৬-১০ বছর। ‘পঞ্চ নানহি কালমেন’-র লক্ষ্যই শিশুদের গুরুত্ব দিয়ে শোকেস করা। তাদের স্বাভাবিক পুঙ্খানুপুঙ্খ কল্পনা-গল্প বলার ক্ষমতা সব ধীরে ধীরে কমে যাচ্ছে। ....

স্টাফ রাইটার,2015-12-01

বাকিংহাম: পার্ল এস বাক-এর 'গুড আর্থ' বইটিতে আমরা পাই প্রধান চরিত্র ও লাং নিজের সন্তানের জন্ম দিতে গিয়ে নিজেই নাড়ি কেটেছিলেন। এসময়ে অন্য চিত্র দেখা গেল। ১১ বছরের মেয়ে যে কিনা কোনও দিন স্কুলেই যায়নি! সেই জন্ম দিল নিজের বোন অর্থাৎ মায়ের সন্তানের।...

স্টাফ রাইটার,2015-10-09

কলকাতা: মেনটাইডের ২০তম বাৎসরিক অনুষ্ঠান ৬ অক্টোবর লা মার্টিনিয়ার ফর গার্লস স্কুলের 'লরেন্স হল'-এ অনুষ্ঠিত হয়। রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠি এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। এছাড়া রানু ভট্টাচার্য, প্রখ্যাত গায়ক সপ্তক ভট্টাচার্য, চার্চের বিশপ রেভারেন্ড অ্যান্ড্রু সিমিক, লা মার্টিন ....

স্টাফ রাইটার,2015-10-06

'স্যাস' নাট্যপত্রিকাটি দীর্ঘ দিনের পরিচিতি নাম। সেই 'স্যাস প্রকাশনা' এবার পুজোয় অনন্দের বার্তা নিয়ে আসতে চলেছে তিনটি বই প্রকাশ করে। আগামী ১২ অক্টোবর মহালয়ার দিন রোটারি সদনে সন্ধ্যে সাড়ে ৬টায় বইগুলি প্রকাশ করবেন বিশিষ্ট ব্যক্তিরা। বৈচিত্রে ভরা এই বইগুলি। শিশুদের জন্য ....

স্টাফ রাইটার,2015-08-14

এই ওয়ার্কশপে অনুপ রায় এঁকেছেন গান্ধীজি ভিখিরি আর আজকের রাজনীতিবিদদের হাতে ভারতের ঝান্ডা ভুড়িওয়ালা বিশাল বপুর অধিকারি, মাথায় নেহেরু টুপি। এর থেকে বড় ব্যাঙ্গ আর কি হতে পারে! কিন্তু গান্ধীজির পড়নে ছেড়া কাপড় ও ছিন্ন থলি হলেও তিনি বিশাল। যেন তিনি লার্জার দেন ...

স্টাফ রাইটার,2015-08-13

ছবি আঁকছেন বহুদিন ধরে। ষাটের দশকে প্রথম প্রদর্শনী। তারপর গঙ্গা দিয়ে বয়ে গিয়েছে বহু জল। এঁকেছেন হাজার হাজার ছবি। তার সমসাময়িকদের কেউ এখন আর ছবি আঁকতে তুলি হাতে নেন না, এমনকি পরের প্রজন্মের অনেকেই তুলে রেখেছেন তুলি। কিন্তু তিনি এখনও একের পর এক এঁকে চলেছেন ছবি। এই শিল্পী রবীন মন্ডলের ছবির প্রদর্শনী শুরু হয়েছে...

স্টাফ রাইটার,2015-07-29

হিউস্টন: সাহিত্যিকের কাজ লেখা, কিন্তু আইনজীবী যখন সাহিত্যিকের কলম কেড়ে নিয়ে লেখেন তখনই তৈরি হয় 'নাম রেখেছি আফ্রিকা'। লেখক তমাল কান্তি মুখোপাধ্যায়। মাসাইমারার জঙ্গলে তার অভিজ্ঞতা ও বহু মূল্যবান ছবি নিয়ে তৈরি এই ভ্রমণ কাহিনি। সম্প্রতি বইটির শুভ উদ্বোধন হল নর্থ অ্যামেরিকান বঙ্গ ...

স্টাফ রাইটার,2015-07-25

কলকাতা: দিনে দিনে পরিষেবা বেড়ে চলেছে সিন্ডিকেট ব্যাঙ্কের। গত দুটি আর্থিক বছরে গ্রোথ রেটের দিক থেকে এই ব্যাঙ্ক ছাড়িয়ে গেছে অন্য সকল ব্যাঙ্ককে। গত আর্থিকবর্ষে গ্রোথ রেট ১৮.৬ শতাংশ। ব্যাঙ্কের ব্যবসা বেড়ে দাড়িয়েছে প্রায় ৪ লক্ষ ৫০ হাজার কোটি টাকা। সারা ভারতের পাশাপাশি পূর্বভারতেও এর সাফল্যের হার আকর্ষনীয়। ...

স্টাফ রাইটার,2015-07-23

কলকাতা: সাগরিকা মিউজিক ও স্টারমার্কের উদ্যোগে ২২জুলাই সন্ধ্যায় 'নিবিড় ঘন আঁধারে' নামে একটি আবেগঘন অনুষ্ঠান হয়। এতে শিল্পী অভিজিত গুপ্তের স্মৃতির উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতে বোন শ্যামশ্রী গুপ্ত একটি রবীন্দ্র সংগীতের সিডির এলবাম প্রকাশ করেন। ঘরোয়া অথচ ঘরোয়া নয় এমনই ....